পদার্থবিজ্ঞানের একক ও মাত্রা | পরীক্ষা প্রস্তুতি | Eduporto

পদার্থবিজ্ঞানের একক ও মাত্রা
গুরুত্বপূর্ণ নৈর্ব্যক্তিক

মাধ্যমিক পদার্থবিজ্ঞানে যে প্রশ্নগুলো বারবার পরীক্ষায় আসে। শুধু ক্লাসের পড়ার জন্যই নয়। শুধু পরীক্ষার পড়ার জন্যই নয়। মজার বিষয় হলো, এগুলো চাকরির পরীক্ষায় বারবার আসে। আজকের আলোচনায়, মাত্র ৫০ টি নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন আলোচনা করা হল। যা মাত্র ৫ মিনিটেই রিভিশন করা সম্ভব। এখানে পদার্থবিজ্ঞানের কিছু একক ও মাত্রা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। তাহলে, চলুন দেখা যাক। SSC Physics

১। তেজস্ক্রিয়তার একক- বেকেরেল।

২। গামা রশ্মির কোন চার্জ নাই।

৩। অর্ধায়ু হল- যে সময়ে ঐ মৌল ঠিক অর্ধেক পরিমাণ হয়।

৪। বিটা রশ্মির ধর্ম ইলেক্ট্রনের মত।

৫। প্রোটনের চার্জ ধণাত্বক।

৬। নিউক্লিয়াসের মধ্যে প্রোটন ও নিউট্রন থাকে।

৭। ইলেক্ট্রন নিউক্লিয়াসের বাইরে থাকে।

৮। তড়িৎ ক্ষমতার একক- ওয়াট ।

৯। তড়িৎ ক্ষমতার বড় একক কিলোওয়াট > মেগাওয়াট।

১০। 1 KW= 103 w

১১। 1 MW= 106 w

১২। রোধের একক- ও’ম উচ্চারণ ওহম। জর্জ সাইমন ওহমের নামানুসারে এই নামকরণ হয়।

১৩। তড়িৎ পরিবাহকত্বের একক- ও’ম মিটার ইনভার্স

১৪। তড়িৎ বিভবের একক ভোল্ট।

১৫। চার্জের একক কুলম্ব। উচ্চারণ-খুলম

১৬। আধানের প্রকৃতি মাপা হয় ইলেক্ট্রস্কোপ দ্বারা।

১৭। চোখের লেন্সের ক্ষমতা অর্থ্যাৎ অভিসারী ক্ষমতা বেড়ে যায় দীর্ঘ দৃষ্টির ত্রুটিতে। সাধারণত বয়স্কদের এই ত্রুটি হয়। তাঁরা দূরের বস্তু স্বাভাবিকভাবে দেখতে পেলেও কাছের বস্তু দেখতে পাই না।

১৮। দীর্ঘ দৃষ্টির ত্রুটিতে চোখের লেন্সের ফোকাস দূরত্ব বেড়ে যায়।

১৯। দীর্ঘ দৃষ্টির ত্রুটি দূর করতে অর্থ্যাৎ বয়স্কদের চোখে উত্তল লেন্সের চশমা ব্যবহার করা হয়।

২০। হ্রস্ব দৃষ্টির ত্রুটিগ্রস্থ চোখ সাধারণত দূরের বস্তু স্পষ্ট দেখতে পাই না। এরা সাধারণত কপম বয়স্ক।

২১। চশমা হিসেবে অবতল লেন্স ব্যবহার করা হয় ক্ষীণ দৃষ্টির ত্রুটি দূর করতে।

২২। সুস্থ চোখ ২৫ সেন্টিমিটার থেকে অসীম পর্যন্ত দেখতে পাই।

২৩। লেন্সের ক্ষমতা একক ডাই অপটার ।

২৪। সূর্যের দিকে তাকালে চোখের যে অংশ সংকুচিত হয়- তা আইরিশ। এই আইরিশ চোখে আলোর পরিমাণ বাড়ায় বা কমায়।

২৫। উত্তল লেন্সে আলো আপতিত হয় তিনভাবে। এক) প্রধান অক্ষের সমান্তরালে। দুই ) প্রধান ফোকাস দিয়ে । তিন) বক্রতার কেন্দ্র বরাবর।

২৬। মরীচিকা হল- অলীক, মিথ্যা। যা কখনো সম্ভব নয়। মরুভূমিতে দূর থেকে পানি দেখা গেলেও কাছে গেলে এর অস্তিত্ব পাওয়া যায় না। এটাই মরীচিকা।

২৭। দুটি শর্ত পূরণ করলে পূর্ণ অভ্যন্তরীণ প্রতিফলন হয়। এক) আলো ঘন মাধ্যম থেকে হালকা মাধ্যমে আপতিত হতে হয়। দুই ) আলো ক্রান্তি কোণ বা সংকট কোণের চেয়ে বড় কোণে আপতিত হতে হয়।

২৮। শূণ্য স্থানে আলোর বেগ পানিতে আলোর বেগের 1.33 গুণ বেশী।

২৯। আলোর প্রতিসরণের দ্বিতীয় সূত্রকে স্নেলের সূত্র বলে।

৩০। পাহাড়ী রাস্তার বাঁকে ৪৫ কোণে বড় সমতল আয়না ব্যবহার করা হয়।

৩১। সমতল আয়নায় দর্শকের পূর্ণ বিম্ব বা ছবি দেখতে গেলে আয়নার দৈর্ঘ্য দর্শকের দৈর্ঘ্যের অর্ধেক হতে হয়।

৩২। শব্দের তীব্রতার একক হচ্ছে ওয়াট পার মিটার স্কয়ার। Wm-2

৩৩। বাতাসে শব্দের বেগ তাপমাত্রার বর্গমূলের সমানুপাতিক।

৩৪। শব্দ শোনার পর 0.1 s সেকেন্ড এর রেশ আমাদের মস্তিস্কে থাকে।

৩৫। কম্পাঙ্কের একক হার্জ।

৩৬। প্রতি ডিগ্রি তাপমাত্রা বৃদ্ধির সাথে শব্দের বেগ 0.6 ms-1 হারে বৃদ্ধি পায়।

৩৭। ক্যালরিমিতির মূল নীতি হল- গৃহীত তাপ=বর্জিত তাপ।

৩৮। আপেক্ষিক তাপের একক Jkg-1K-1

৩৯। তাপধারণ ক্ষমতার একক হল- JK-1

৪০। তরল পদার্থের প্রসারণের মূল কথা হল-আগে পাত্রের প্রসারণ হয়। তারপর তরলের প্রসারণ হয়। কেননা, তরলকে কোন না কোন পাত্রে না রেখে তাপ দেয়া যায় না।

৪১। গলনাংক হলো একটি তাপমাত্রা। যে তাপমাত্রায় পদার্থ গলে যায়।

৪২। তাপমাত্রা হল-পরিমান। অর্থ্যাৎ বস্তু কতটুকু গরম বা ঠান্ডা তাই তাপমাত্রা।

৪৩। তাপ হল- ঠান্ডা বা গরমের অনুভূতি। আমরা শুধু গরম বস্তুকেই মনে করি তাপ আছে। কিন্ত বিষয়টি তা নয়। ঠান্ডা হলেও তা তাপ নির্দেশ করবে। কতটুকু ঠান্ডা তা তাপমাত্রা।

৪৪। সেলসিয়াস স্কেল দ্বারা সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা 00 ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 1000 মাপা যায়।

৪৫। ফারেন হাইট স্কেল দ্বারা সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা 320 ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 2120 মাপা যায়।

৪৬। কেলভিন স্কেল দ্বারা সর্ব নিম্ন তাপমাত্রা 2730 ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা 3730 মাপা যায়।

৪৭। ত্রৈধ বিন্দু হলো একটি তাপমাত্রা। যে তাপমাত্রায় পদার্থ তিন অবস্থায়ই থাকতে পারে।

৪৮। এক ক্যালরি= ৪.২ জুল।

৪৯। এক জুল = ০.২৪ ক্যালরি।

৫০। কোন তাপমাত্রাতেই সেলসিয়াস স্কেল ও কেলভিন স্কেল একই পাঠ দেয় না। তবে সেলসিয়াস স্কেল ও ফারেন হাইট স্কেল -400 তাপমাত্রায় একই পাঠ দেয়।

ssc physics important question

Share to future view

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *